পাকুন্দিয়ায় কৃষক হত্যা মামলায় আপন ভাই-বোনসহ সাতজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড 


admin প্রকাশের সময় : সেপ্টেম্বর ৫, ২০২৩, ৭:০৮ অপরাহ্ন /
পাকুন্দিয়ায় কৃষক হত্যা মামলায় আপন ভাই-বোনসহ সাতজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড 

বিশেষ প্রতিনিধি, কিশোরগঞ্জ:

কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়ার কৃষক রিটন হত্যা মামলার ঘটনায় নিহতের আপন চারভাই এবং দুই বোনসহ সাতজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।মঙ্গলবার (৫ সেপ্টেম্বর) দুপুরে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত-৩ এর বিচারক ফাতেমা জাহান স্বর্ণা এ আদেশ দেন।রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী এপিপি অ্যাডভোকেট দিলীপ কুমার ঘোষ রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন, পাকুন্দিয়া উপজেলা সুখিয়া ইউনিয়নের খলিশাখালী গ্রামের মৃত মতিউর রহমানের চার ছেলে নজরুল (৩৮), খোকন (৪০), সাত্তার (৩৫), বকুল (৪৮) ও মেয়ে চম্পা আক্তার (৩৫)। বাকিরা হলেন, নজরুলের স্ত্রী রহিমা খাতুন (৩৫) ও একই ইউনিয়নের ঠুটারজঙ্গল গ্রামের মকু মিয়ার ছেলে মো. সৈয়দ (৫০)।এসময় নজরুল ছাড়া বাকি ছয়জন আদালতে উপস্থিত ছিলেন।মামলার বিবরণে জানা গেছে, জেলার পাকুন্দিয়া উপজেলা সুখিয়া ইউনিয়নের খলিশাখালী গ্রামে বাড়ির সীমানায় গাছ কাটা নিয়ে ২০১৬ সালের ২৩ নভেম্বর কথাকাটাকাটির জেরে রিটন মিয়াকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে গুরুতর আহত করেন তারই ভাই-বোনরা।গুরুতর আহতাবস্থায় এলাকাবাসী উদ্ধার করে কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী সালমা আক্তার বাদী হয়ে সাতজনকে আসামি করে পাকুন্দিয়া থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।২০১৭ সালে ১৯ অক্টোবর মামলার তৎকালীন তদন্ত কর্মকর্তা পাকুন্দিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. সারোয়ার জাহান আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন।রাষ্ট্রপক্ষে মামলাটি পরিচালন করেন এপিপি দিলীপ কুমার ঘোষ।এ রায়ে বাদীপক্ষ সন্তোষ প্রকাশ করেছেন।