কিশোরগঞ্জ-১ আসনে নৌকার প্রার্থী ডা. সৈয়দা লিপির মনোনয়ন বৈধ, দুই স্বতন্ত্র প্রার্থীর বাতিল


admin প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ৩, ২০২৩, ২:৪০ অপরাহ্ন /
কিশোরগঞ্জ-১ আসনে নৌকার প্রার্থী ডা. সৈয়দা লিপির মনোনয়ন বৈধ, দুই স্বতন্ত্র প্রার্থীর বাতিল

 

শাহজাহান সাজু, কিশোরগঞ্জ:

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কিশোরগঞ্জ-১ (সদর-হোসেনপুর) আসনের বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মুক্তিযুদ্ধকালীন সরকারের অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলামের কন্যা ও আওয়ামী লীগের দুইবারের সাবেক সাধারণ বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম এর ছোট বোন ডা. সৈয়দা জাকিয়া নূর লিপির মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে।

রোববার (০৩ ডিসেম্বর) বেলা ১১টায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত যাচাই বাছাই শেষে কিশোরগঞ্জের জেলা প্রশাসক ও রিটার্নিং অফিসার মোহাম্মদ আবুল কালাম আজাদ আওয়ামী লীগ প্রার্থীর মনোয়নপত্রটি বৈধ ঘোষণা করেন।

তবে এ আসনে দুই স্বতন্ত্র প্রার্থী মেজর জেনারেল (অব:) সৈয়দ শাফায়াতুল ইসলাম ও কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শরীফ আহমেদ সাদীর মনোনয়নপত্রে দাখিলকৃত এক শতাংশ ভোটারের স্বাক্ষরিত তালিকায় গড়মিল থাকায় তা বাতিল করে দেন রিটার্নিং অফিসার মোহাম্মদ আবুল কালাম আজাদ।

মনোয়নপত্র বৈধ ঘোষণার পর এক প্রতিক্রিয়ায় ডা. সৈয়দা সৈয়দা জাকিয়া নূর লিপি বলেন, দলীয় মনোনয়ন দেওয়ায় জননেত্রী হাসিনা আপার প্রতি আমি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। আল্লাহর রহমতে ও আপনাদের সকলের দোয়ায় আমার মনোনয়ন পত্রটি বৈধ হওয়ায় শুকরিয়া আদায় করছি। তিনি আরো বলেন, কিশোরগঞ্জ সদর ও হোসেনপুর উপজেলার সর্বক্ষেত্রে উন্নয়নের জন্য যা যা করা প্রয়োজন আমি তাই করব। জয়ের ব্যাপারে আমি শতভাগ আশাবাদী।

কিশোরগঞ্জ-১ ( সদর- হোসেনপুর) আসনে মোট ১২ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। তারা হলেন- ডা. সৈয়দা জাকিয়া নূর লিপি এমপি (আওয়ামী লীগ) মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ সাফায়েতুল ইসলাম (স্বতন্ত্র) জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এড .সৈয়দ আশফাকুল ইসলাম টিটু (স্বতন্ত্র) শরীফ আহমদ সাদী (স্বতন্ত্র) মোবারক হোসেন (বাংলাদেশ কংগ্রেস) মো. আবুল কাশেম (বাংলাদেশ কংগ্রেস) ডা. আব্দুল হাই (জাতীয় পার্টি) এড. ভূপেন্দ্র ভৌমিক দোলন (গণতন্ত্রী পার্টি), মো. আনোয়ারুল কিবরিয়া (ন্যাশনাল পিপলস পার্টি-এনপিপি) মো. আব্দুল আউয়াল (সাংস্কৃতিক মুক্তিজোট) মো. আশরাফ উদ্দিন (ইসলামী ঐক্যজোট-আইওজে) মো. নাসির উদ্দিন (জাকের পার্টি)। যাচাই-বাছাই শেষে দুইজন স্বতন্ত্র প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল করেন রিটার্নিং অফিসার।